মহাকাশের টাইম-জোন

মহাকাশচারীরা মহাকাশে ঘড়ি ব্যবহার করলে, তাঁরা কোন জায়গার টাইম-জোনের সঙ্গে খাপ খেয়ে চলেন?

সাধারণভাবে যদি কোন মিশন বিভিন্ন দেশের সঙ্গে যৌথভাবে করা হয়ে তখন একটা common time ব‍্যবহার করা হয়ে। যেমন আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনে কোন resupply mission, বা crew পৌঁছানো বা ফেরত নিয়ে আসা এগুলো কে যৌথ মিশনের আওতায় ফেলা যায়। তাছাড়া আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনেও এই common time ব‍্যবহার করা হয়। এই কমন টাইম GMT( Greenwich Mean Time) বা UTC ( Universal Time Coordinated) time zoneএর আওতায় আসে। ভারতের ক্ষেত্রে UTC +5:30 hrs এবং বাংলাদেশের ক্ষেত্রে UTC +6 hrs যোগ করলে আমরা নিজেদের সময় পেয়ে যাবো। পৃথিবীতেও যেকোনো যৌথ কর্মসূচি এই GMT মেনে করা হয়ে এই জন্য এটাকে common time বা universal time বলা হয়ে। যদি কিছু বলা না থাকে এই সময়কে hrsএ লেখা হয়ে যেমন 5:30AM কে লেখা হয়ে 0530hrs এবং 5:30PM কে লেখা হবে 1730hrs। যেকোনো দেশের সেনাবাহিনীরা সময় এইভাবেই লেখে তাই স্পেস মিশনেও এই ভাবে সময় লেখা হয়ে।

এবার প্রশ্ন করতে পারেন কেন GMT বা UTC কে কমন টাইম নেওয়া হয়ে?

এটার উত্তর দিতে আমাদের কিছু জিনিস জানতে হবে। সারা পৃথিবীকে ৩৬০টা longitude এ ভাগ করা হয়ে এবং এগুলোকে meridian বলা হয়ে। এই মেরিডিয়ানের তারতম্য ঘটলে সময় বদলে যায়। এই কারণে মুম্বাইতে সূর্য কোলকাতার থেকে পরে ওঠে এবং ডোবে। কিন্তু এক একটা জায়েগায়ে এক একটা সময় হলে মুশকিল তাই সুবিধার জন্যে আমরা প্রত‍্যেক ১৫ ডিগ্রি লংগিচিউডকে একসঙ্গে করে একটা টাইম জোন বানিয়েছি। এবং 0 ডিগ্রি লংগিচিউড থেকে সময় গোনা হয়ে। এই 0 ডিগ্রি লংগিচিউড গ্রিনউইচ বলে ইংল্যান্ডের একটা গ্রাম দিয়ে যায় বলে এই শুরুর টাইম জোনকে GMT বলা হয়ে এবং আন্তর্জাতিক কোন কিছু এই টাইম জোন মেনে করা হয়ে।

আন্তর্জাতিক স্পেস মিশনগুলো UTC বা GMT মেনে করা হলেও, কোন দেশ তাদের নিজস্ব মিশনে মহাকাশচারী পাঠালে তারা তাদের standard time মেনে চলে। যেমন রাশিয়ার স্পস এজেন্সি ROSCOSMOS, Moscow Standard Time (GMT+3) মেনে চলে, চিনের China National Space Administration, China Standard Time( GMT +8) মেনে চলে এবং NASA, Eastern Standard Time(GMT -5) মেনে চলে। যেহেতু এই তিনটি দেশ ছাড়া আর কেউ তাদের নিজস্ব প্রযুক্তিতে মহাকাশচারী মহাকাশে পাঠায়নি তাই অন‍্য দেশ মহাকাশচারী পাঠালে তা আন্তর্জাতিক মিশনের জন্য পাঠাবে তাই তারা কমন টাইম ব‍্যবহার করবে।

By ইমতিয়াজ আহমেদ ইমন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *